করোনার কারণে এই প্রথম রমজান মাসে বাংলাদেশ এবং পুরো বিশ্ব দেখবে ভিন্ন চিত্র।


প্রায় চার মাস হলো করোনার প্রাদুর্ভাব। পুরো বিশ্বের সকল আনন্দ, সুখ, ঐতিহ্য, কাজ, শিক্ষা,  খেলাধুলা সব বন্ধ করে দিয়েছে এক অদৃশ্য করোনাভাইরাস। সারা বিশ্বের সকল ধর্মীয়, সাংস্কৃতিক সকল মানুষদের জন্য এ যেনো এক অভিশাপ। মুসলমানরা মসজিদে নামাজ পড়তে পারছে না, হিন্দুরা পূজো দিতে পারছে না, খ্রিস্টানরা চার্চে যেতে পারছে না। 

বাংলাদেশে করোনা আসলো প্রায় দেড়মাস হলো৷ আর ২ দিন পরেই পবিত্র রমজান মাস। প্রায় এক মাস ধরে সারা দেশের মানুষ কর্মহীন। এই রমজান মাস মুসলমানদের জন্য কষ্টকর হবে এটাই স্বাভাবিক। মসজিদে গিয়ে তারাবিহ নামাজ পড়াও নিষেধ৷ সৌদি আরব তাদের দেশে ঘোষণা দিয়েছে তারাবীহ এবং ঈদের নামাজ যেনো বাড়িতে পড়া হয়। উত্তর আমেরিকার দেশগুলো বলছে তারাবীহ নামাজ বাড়িতে থেকে পড়বে এবং অনলাইনে সরাসরি সম্প্রচার দেখে পড়তে পারবে। মুসলিম রাষ্ট্রগুলো এমন পরিস্থিতি কখনোই দেখে নি। 

বাংলাদেশের কর্মহীন মানুষগুলো রমজানে পড়বে অর্থ, রিযিকের সংকটে। তখন কাঁচাবাজার,  রমজান মাসের অন্যান্য সামগ্রির দামও থাকবে বেশি। ধর্মপ্রাণ মুসলমানেরা অনেক কষ্টে, অভাবেই রোজা রাখতে হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। নিত্য পন্যের দাম এখন কিছু নিম্নমুখী হলেও রমজানে প্রতি বছরই উর্ধ্বমুখী দেখা যায়। এইবার এর ব্যতিক্রমও হওয়ার কথা না। 

বাংলাদেশ তথা পুরো বিশ্বের মুসলমানরা কখনো কল্পনা করে নি এমন ভয়াবহ দিন আসবে, যখন মসজিদে গিয়ে নামাজ পড়া হবে নিষিদ্ধ।  সারাদিন রোজা রেখে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা তারাবীহ নামাজ পড়বে, এটা তাদের রমজানের বড় এবাদত। আর সেই এবাদতই করতে হবে ঘরে ঘরে, করোনা সত্যিই পরিবর্তন করে দিয়েছে গোটা বিশ্বকে। 

সরকারী ছুটির ঘোষণা করা হয়েছে ৫ই মে পর্যন্ত।  অথচ একজন বুদ্ধিসম্পন্ন যেকেনো মানুষই বুঝতে পারছে, দেশের যে অবস্থা,  ঈদের আগে এসব ভাইরাসের প্রভাব দূর হবে না। আর যদি তাই হয়, তাহলে পুরো রমজান মাস ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা পড়বে ভোগান্তিতে। 

সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নিজ নিজ ঘরে বসে এই পবিত্র, ফযিলতপূর্ণ মাসে দয়াময় আল্লাহর কাছে প্রাণ খুলে দোয়া করা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই। মুসলিম প্রধান রাষ্ট্র হিসেবে গোটা বাংলাদেশের একটাই দোয়া, রমজান মাসের উছিলা করে হলেও পুরো বিশ্ব থেকে এই করোনা গজব দূরীভূত হয়ে যাক।




লেখাঃ নূরে আজম খান



কোন মন্তব্য নেই

Write your comment here........

Blogger দ্বারা পরিচালিত.