করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের যা কিছু অবদান।


বাংলাদেশে করোনারোগী প্রথম পাওয়া যায় ৮ই মার্চ। তারপর করোনার প্রভাবে সারা বাংলাদেশেই মার্চ মাসের  মাঝামাঝি থেকেই বাংলাদেশের সকল ধরণের ক্রিকেট খেলা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়।  বাংলাদেশের ক্রিকেটার এই প্রথম এতো লম্বা ছুটি পেয়েছে।  কিন্তু করোনা মোকাবেলায় তাদের দানের হাত বন্ধ হয় নি। 

মার্চের ২৫ তারিখ বাংলাদেশের জাতীয় দলের ১৭ ক্রিকেটার তাদের মাসিক বেতনের অর্ধেক টাকা করোনা মোকাবেলায় দান করবে বলে স্বীদ্ধান্ত নেয়। তাদের সাথে আরো ১০ জন ক্রিকেটার মিলিত হয়ে মোট ২৭ জন ক্রিকেটার করোনা মোকাবেলায় প্রায় ২৯ লক্ষ টাকা দান করে। পুরো বাংলাদেশের ক্রিকেট আবার জাগ্রত হোক এটাই তাদের কামনা। 

এখানেই শেষ নয়। বাংলাদেশের সাবেক সফল ক্যাপ্টেন মাশরাফি এখন নড়াইল আসনের সাংসদ সদস্য।  তিনি তার নড়াইল আসনের সমস্ত করোনা পরিস্থিতি মাঠে নেমে দেখা শুনা করছেন। রোগীদেরকে হাসপাতার আসার কষ্ট থেকে বাঁচানোর জন্য উনি তৈরী করেছে রোগীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার মতো বেশ কিছু ডাক্তার। তারা সবসময় রোগীদের ফোন পেলেই এগিয়ে যায় রোগীদের কাছে। 

বাংলাদেশের অন্যতম ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশ টেষ্টের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরিয়ান। তিনি যেই ব্যাট দিয়ে এই কীর্তি করেন, সেই অমূল্য ব্যাট করোনায় অসহায়দের সাহায্যের জন্য বিক্রি করে দেন। কিছুদিন আগে তার এই ব্যাট নিলামে ওঠে এবং চড়া দামে বিক্রি হয়। তিনি তার এমন মূল্যবান স্মৃতিকে বিসর্জন দিয়েছে বাংলাদেশের গরিব অসহায় মানুষদের জন্য। 

বাংলাদেশ ক্রিকেট তথা সারাবিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তিনি গত ২০১৯ বিশ্বকাপে অসাধারণ পারফর্মেন্স দেখান। ব্যাট হাতে ৬০০+ রান করেন। আর সেই ব্যাট তিনি গতকাল ২২ শে এপ্রিল নিলামে তুলেন। করোনায় গরিব অসহায়দের সাহায্যের জন্য তিনি তার ব্যাটটি ২০ লক্ষ টাকা বিক্রি করে দেন। আর এই টাকার সম্পূর্ণ অংশ তিনি বিলিয়ে দেন গরিবদের জন্য৷ 

বাংলাদেশ ক্রিকেট এখন বন্ধ। যারা টিম বয়, ম্যাসেজম্যান, মাঠ কর্মী ছিলো, তারা এখন একদম কর্মহীন অসহায় জীবন কাটাচ্ছে। তাদের জন্য এগিয়ে আসে বাংলাদেশের পঞ্চপাণ্ডব। বাংলাদেশ ক্রিকেটের সেরা পঞ্চপাণ্ডব বলা হয় সাকিব, তামিম, মুশফিক, মাশরাফি,  মাহমুদউল্লাহ এই ৫ জনকে। তারা ৫ জন মিলে প্রায় ৫০ লক্ষ টাকা দান করে ৫০ জন টিম বয়, ম্যাসেজম্যান, মাঠকর্মীদের। প্রত্যেকে ১০ হাজার টাকা করে পায়।

বাংলাদেশের আরো অন্যান্য ক্রিকেটার যেমন মোসাদ্দেক, রুবেল এমন অনেক ক্রিকেটার নিজস্ব ভাবেও গরিব অসহায়দের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। তারা শুধু বাংলাদেশের ক্রিকেটার না, তারা একেকজন সৈনিক। এমন দুর্দিনের নায়ক।



লেখাঃ নূরে আজম খান




কোন মন্তব্য নেই

Write your comment here........

Blogger দ্বারা পরিচালিত.