বিশ্বের কিছু দেশ করোনামুক্ত হওয়ার পথে।

চীন থেকে শুরু হওয়া করোনাভাইরাস প্রায় ৩ মাস ধরে পুরো বিশ্বের মানুষকে নিদ্রাহীন করে তুলেছে। প্রায় ১৮৫ টি দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ মরছে। এ পর্যন্ত প্রায় ২ লাখেরও বেশি মানুষ মৃত্যুবরণ করেছে করোনায় আর আক্রান্ত হয়েছে প্রায় ৩০ লাখ ছুঁই ছুঁই।  পুরো বিশ্বের প্রায় ৩০০ কোটি মানুষ লকডাউনে আছে। চীনে ডিসেম্বরের শেষ দিকে করোনায় প্রথম ব্যক্তি আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে তাদের দেশে প্রায় ৪ হাজারের অধিক মানুষ মৃত্যুবরণ করে। প্রায় ৮৭ হাজার আক্রান্ত হয়। অথচ তারা প্রায় ৩ মাসে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে যায় করোনার প্রভাব থেকে।

এখন শুনা যাচ্ছে আরো আশার বানী। যুক্তরাষ্ট্রের পরই স্পেন ও ইতালিতে করোনায় মৃতের সংখ্যায় বিশ্বের সবচেয়ে বেশি হয়।  প্রতিদিন ২ টি দেশে গড়ে প্রায় ৮/৯ শত করে মানুষ মৃত্যুবরণ করছিলো। দুটি দেশে গত দুই দিনের মৃত্যু সংখ্যা গত দেড়মাসের মধ্যে সবচেয়ে কম। স্পেনে ২৮৮ জন মৃত্যুবরণ করে গত ২৪ ঘন্টায়।  সেই কারণে ১৪ বছরের বাচ্চাদের জন্য লকডাউন শিথিল করা হয়েছে স্পেনে। প্রায় ৪০ দিন পর স্পেনের মানুষ বাইরে বের হয়ে কিছুটা শান্তিতে হাঁটতে,  খেলতে পেরেছে। ইতালিতেও লকডাউন শিথিল করার চিন্তা চলছে।

যুক্তরাষ্ট্রের মৃতের এবং আক্রান্তের সংখ্যা পুরো বিশ্বের সকল দেশকে ছাড়িয়ে গেছে। দেশে প্রায় ৫৪ হাজার মৃতের সংখ্যা। প্রতিদিন প্রায় এক হাজার মানুষ মৃত্যুবরণ করছে। তবুও সে দেশের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চিন্তা করে নিয়েছে যে, দেশ থেকে লকডাউন ওঠিয়ে দেওয়ার। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়া অঙ্গরাজ্য লকডাউন খুলে দিয়েছে। 

হংকং-এ গত দুদিনে করোনায় কোনো মানুষ আক্রান্ত হয় নি। সুইজারল্যান্ডেও করোনার অবস্থা বেশ ভালো। তারা লকডাউন খুলে দিবে বলে ভাবছেন। 

বাংলাদেশেও তার ব্যতিক্রম নয়৷ কিছুদিন ধরে মৃতের সংখ্যা নিয়ন্ত্রিত অবস্থায় আছে। প্রতিদিন সুস্থ হচ্ছে কয়েকজন করে। আর সামনের ঈদকে কেন্দ্র করে অনেক গার্মেন্টস,  কল-কারখানা খুলে দিয়েছে। সারাদেশে যেই থমথমে ভাব, লকডাউন ছিলো তা এখন কিছুটা কমে গেছে। 

অনেকের ধারণা জুলাইয়ের দিকে করোনা থেকে মুক্তি মিলবে পুরো বিশ্বের। কারো ধারণা মে মাসের তীব্র গরমেও করোনা প্রভাব কমে যাবে। তবে সে যা-ই হোক, পুরো বিশ্বের একটাই ইচ্ছা আকাঙ্ক্ষা, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব পুরো বিশ্ব করোনা থেকে মুক্ত হবে ইন-শাল্লাহ। 

লেখাঃ নূরে আজম খান

কোন মন্তব্য নেই

Write your comment here........

Blogger দ্বারা পরিচালিত.