করোনা ভাইরাসের কারণে ঈদেও খোলা হবে না জুয়েলারি শপ।

করোনা ভাইরাসের কারণে গত জানুয়ারি মাস থেকেই প্রায় সকল দেশের সকল সেবা ও প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। বাংলাদেশের সকল প্রতিষ্ঠানও বন্ধ ছিল কত দুই মাস যাবত। ঈদের কারণে সকল সেবামূলক প্রতিষ্ঠান আবারো খুলতে শুরু করেছে। কিন্তু কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান আছে যেগুলো জনগণের নিত্য প্রয়োজনীয় নয়। যেগুলো না খোল থাকলেও মানুষের চলবে সেসব প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। জুয়েলারি শপ সাধারণ মানুষের নিত্য প্রয়োজনীয় কোন জিনিস নয়। তাই করোনা ভাইরাসের কারণে জুয়েলারি শপ বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন দেশের সরকার।

করোনা ভাইরাসের কারণে এবার ঈদে জুয়েলারি শপ খোলা হচ্ছে না। সকল জুয়েলারি ব্যবসায়ীদের সবথেকে বেশি লাভজনক সময় হলো ঈদ। সকল ব্যবসায়ী ঈদের জন্য অপেক্ষা করে থাকেন। কারণ ঈদেই সব থেকে বেশি জুয়েলারি বিক্রি হয়। তারা ঈদ আর অপেক্ষায় থাকে কারণ যখন ঈদ আসবে তারা তখন অনেক জুয়েলারি বিক্রি করে বেশি লাভবান হবেন তারা। কিন্তু এইবার ঈদে এসব ব্যবসায়ীদের সেই সৌভাগ্য হচ্ছে না। কারণ করোনা ভাইরাস এর কারণে সারা বিশ্ব এখন প্রায় অচল। সেখানে বংলাদেশের অর্থনীতির অবস্থা বিবেচনা করে বাংলাদেশ সরকার একটি  সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। দেশের মানুষের চাহিদা বিবেচনা করে কিছু কিছু প্রতিষ্ঠান খোলা থাকার এবং যেসব প্রতিষ্ঠান সাধারণ মানুষ এর খুব বেশি প্রয়োজন নেই সেসব প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন দেশের সরকার। যেহেতু জুয়েলারি শপ সাধারণ মানুষের প্রয়োজনীয় কোন বিষয় বস্তু নয়। তাই সাধারণ মানুষের কথা বিবেচনা করে এবং করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে সকল জুয়েলারি শপ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জুয়েলারি শপের মালিকেরা জুয়েলারি শপ খোলা রাখার আবেদন করেছিলেন। কিন্তু সাধারণ জনগণের কথা বিবেচনা করে সেই আবেদনটি গ্রাহ্য করা হয়নি। এবং তাদের আবেদন না মেনে সকল জুয়েলারি শপ গুলো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এতে করে জুয়েলারি শপের মালিকগণ অনেক আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন।  তার সাথে সরকারেরও অনেক ক্ষতি হবে। কিন্তু দেশের জনগণের কথা বিবেচনা করে সকল জুয়েলারি শপ এবার ঈদে না খুলার নিৰ্দেশ দেয়া হয়। 

নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস গুলো শুধুমাত্র খুলবে এবার ঈদে। জুয়েলারি শপ এর মত অনেক বড় বড় শপিংমলগুলো বন্ধ থাকবে।যেমন: যমুনা ফিউচার পার্ক, নিউ মার্কেট এসব বড় বড় শপিংমলগুলো জনগণের ভালোর জন্য বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এরকম আরো গুরুত্বপূর্ণ ও আপডেটেড খবর পেতে অনলাইন পত্রিকার সাথেই থাকুন।

লেখা: রাকিব হাসান



কোন মন্তব্য নেই

Write your comment here........

Blogger দ্বারা পরিচালিত.