মধুর উপকারিতা সমূহ জেনে নিন।

লোকমুখে শোনা যায়,
"জন্মের পর শিশুর মুখে প্রথমে মধু দিলে শিশু মিষ্টি কথা বলা শেখে"
এটা শুধু উপমা মাত্র, সত্যি নয়। এটি মিষ্টি সুস্বাদযুক্ত হওয়ার জন্যই এমন কথা শোনা যায়।

কিন্তু মধুর বিশেষ কিছু মিষ্টি গুণ আছে, এ কথা স্বীকার করতেই হয়। শরীরের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধির সাথে সাথে শরীরকে সুস্থ ও নীরোগ রাখতে মধু বেশ সহায়ক ভুমিকা পালন করে।
 মধুর সুফল বা উপকারিতা শুধুমাত্র স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রেই নয় বরং এর ব্যাপকতা রয়েছে রুপচর্যায়ও। রূপচর্চা ও চুলের যত্নে বিশেষভাবে মধুর ব্যবহার হয়। খুব সহজলভ্য নয়, তাই বেশ দামী বলা যায়। অনেক স্বাস্থ্য রক্ষায় 
গরম জলে মধু, চায়ের সঙ্গে মধু ইত্যাদি নিয়মে নিয়মিত মধু খেয়ে থাকেন।
মধুতে রয়েছে গ্লুকোজ, ফ্রুক্টোজ, সুক্রোজ, মন্টোজ, অ্যামাইনো এসিড, খনিজ লবণ, এনকাইম, ভিটামিন-বি কমপ্লেক্স
(ভিটামিন-বি১,বি২,বি৩,বি৫,বি৪,বি৫,বি৬), জিংক, আয়োডিন, এন্টিব্যাকটেরিয়াল, এন্টিমাইক্রোবিয়াল সহ নানা ধরনের খাদ্যগুণ, যা শরীরের জন্য নানা ধরনের উপকারী।

প্রতি ১০০ গ্রাম মধুতে থেকে ২৮৮ ক্যালরি(প্রায়) শক্তি পাওয়া যায়, এতে চর্বি ও প্রোটিন থাকে না।

মধুর খাদ্যগুণ সম্পর্কে তো জানা হলো, এবার জেনে নিন, নিয়মিত মধু খেলে কী কী উপকার পেতে পারেন,
১/মধু শরীরের রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়ায়।
 মধুতে বিদ্যমান এন্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান রোগ প্রতিরোধকারী শক্তি গড়ে তোলে, যে কোনো রকম সংক্রমণ থেকে দেহকে রক্ষা করে।

২/প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর আগে মধু খেলে ঘুম ভালো হয়, অনিদ্রাজনিত সমস্যা দূর হয়, শরীর ভালো থাকে।

৩/ মধু কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে।

৪/ গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থাকলে, প্রতিদিন ভোরবেলা খাটি মধু খেলে সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়, মুখে টক ভাব দূর হয়।

৫/  মধুর মধ্যে বিদ্যমান উপাদানগুলি হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। ফলে খাবার খাওয়ার পর বদ হজম, গলা বুক জ্বালা ইত্যাদি সমস্যা দূর হয়। 

৬/পাকস্থলী কার্যক্ষমতা ভালো থাকে।

৭/মধু খেলে খাবরে অরুচি কমে। খাবার চাহিদা বাড়ে। খাবার দেখলেই বা সামান্য খেলেই বমি বমি ভাব আসে। সেই সমস্যার সমাধানও করে, বমিভাব কমাতে সাহায্য করে। 

৮/ মধু যে শুধুমাত্র আপনার কায়িক শক্তি বাড়ায়, তা নয়। ঘুমানোর আগে এক চামচ মধু খেলে তা মস্তিষ্কের কাজ সঠিক ভাবে চালাতে সাহায্য করে। ফলে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়।

১০/মধু হৃদপেশিকে সুস্থ সবল করে এবং এর কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

নিয়মিত মধু খেলে শারিরীক সুস্থতা অর্জন করা যায়।

প্রতিবেদন
মিথিলা সাদ তুহিন

কোন মন্তব্য নেই

Write your comment here........

Blogger দ্বারা পরিচালিত.